নোয়াখালী মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট স্কুল (ম্যাটস) বন্ধ ঘোষণা

0
293

নোয়াখালী সংবাদদাতা :: নোয়াখালী মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট স্কুলের ডাইনিং হল পরিচালনার বিরোধের জের ধরে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় দুজন আহত হয়েছেন। এ সময় তিনজনকে আটক করেছে পুলিশ।

পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আগামী ৭ দিন স্কুলের সকল ক্লাস বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। একই সঙ্গে সোমবার রাতের মধ্যে ছাত্রদের হল ত্যাগের নির্দেশ দিয়েছেন স্কুল কর্তৃপক্ষ।

মেডিকেল অ্যাসিস্ট্যান্ট স্কুলের অধ্যক্ষ ডা. আনোয়ারুল আজিম জানান, স্কুলের ডাইনিং হল পরিচালনার জন্য মাহফুজুর রহমান ও ইব্রাহিম হোসেন শুভকে যৌথভাবে দায়িত্ব দেয়া হয়। গত কয়েকদিন থেকে তাদের মধ্যে বিরোধ চলছিল।

বিরোধের জেরে সোমবার দুপুরে  ইব্রাহিম তার সহযোগীদের নিয়ে মাহফুজুর রহমানকে মারধর করে আহত করে। ছাত্ররা তাকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করায়। এ ঘটনা সন্ধ্যায় আবারও জড়ো হয়ে সংঘর্ষের পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে পুলিশে খবর দেয়া হয়।

পুলিশ ইব্রাহিমসহ তার সহযোগী অমি ও লিমনকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে রাত ৮টার মধ্যে ছাত্রদের এবং মঙ্গলবার সকাল ১০টার মধ্যে ছাত্রীদের হল ত্যাগের নির্দেশ দেয়া হয়েছে। আগামী ১৩ ডিসেম্বর পর্যন্ত স্কুলের সকল ক্লাস বন্ধ থাকবে। স্কুলের বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে বলেও জানান তিনি।

সুধারাম থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন জানান, সংঘর্ষের ঘটনায় একজন ছাত্রের মাথায় আঘাত পেয়েছেন। তিনি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। মৌখিক অভিযোগের ভিত্তিতে তিনজনকে আটক করে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে