লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের তালা

0
133

লক্ষীপুর সংবাদদাতা :: তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজের প্রশাসনিক কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে দিয়েছে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। এসময় নিজের কার্যালয়ে প্রায় এক ঘণ্টা অবরুদ্ধ থাকেন কলেজের অধ্যক্ষ মাইন উদ্দিন পাঠান ও উপাধ্যক্ষসহ কয়েকজন শিক্ষক। রবিবার (৩০/৪/২০১৭) দুপুর আড়াইটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, গতকাল শনিবার এইচএসসি প্রথম বর্ষ চূড়ান্ত পরীক্ষা চলাকালে শ্রেণিকক্ষে মাহমুদুল হাসান পাবেল নামের এক শিক্ষার্থীকে কথা বলতে নিষেধ করেন প্রভাষক আলিমুজ্জামান রিংকু। এতে ক্ষিপ্ত হয় ওই শিক্ষার্থী। পরে তার পক্ষ নিয়ে ঘটনার সময় জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেলসহ কয়েক নেতাকর্মী ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে অধ্যক্ষের কাছে নালিশ জানাতে যায়। এসময় সোফায় বসে থাকা তিন ছাত্রলীগ নেতাকর্মীকে অধ্যক্ষ শ্রেণিকক্ষে যাওয়ার জন্য বললে তারা বের হয়ে যায়।

এর কিছুক্ষণ পর কলেজ ছাত্রলীগের যুগ্ম-আহবায়ক রেজাউল করিম নিশানের নেতৃত্বে নেতাকর্মীরা প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেয়। ঘণ্টাখানেক পরে ওই তালা খুলে দেওয়া হয়। পাবেল কলেজ ছাত্রলীগ কর্মী ও লক্ষ্মীপুর পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান বিপুলের ছোট ভাই।

জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি চৌধুরী মাহমুদুন্নবী সোহেল বলেন, এক শিক্ষার্থীকে মারধর এবং ছাত্রলীগ নিয়ে কটূক্তি করার প্রতিবাদে শিক্ষার্থীরা প্রশাসনিক ভবনে তালা ঝুলিয়ে দেয়।

এ ব্যাপারে লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজের সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক আলিমুজ্জামান রিংকু জানান, ছাত্রলীগ নিয়ে কটুক্তির বিষয়টি সম্পুর্ণ কাল্পনিক। পরীক্ষা কেন্দ্রে কথা বলতে ছাত্রকে নিষেধ করা হয়েছিল। এর বেশি কিছু হয়নি। তবে এ ব্যাপারে কলেজের অধ্যক্ষ মাইন উদ্দিন পাঠানের বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

উল্লেখ্য, গত এক বছরে বিভিন্ন অভিযোগ এনে কলেজের প্রশাসনিক কার্যালয়ে ও একাডেমিক ভবনে বেশ কয়েকবার ঝুলিয়ে দেয়ার অভিযোগ রয়েছে ছাত্রলীগ নেতাদের বিরুদ্ধে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে