ভ্রাম্যমান আদালতে ফেনীর দুই ভুয়া সার্টিফিকেটধারী ল্যাব টেকনোলজিস্টের কারাদণ্ড

0
115
https://www.noakhalitimes.com

ফেনী সংবাদদাতা :: সোমবার ফেনীতে ক্লিনিক ডায়াগনস্টিক সেন্টারে ভ্রাম্যমান আদালত অভিযান পরিচালনা করে জেলা প্রশাসন, ফেনী। এ অভিযানের নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সোহেল রানা।

এ সময় শহরের নাজির রোডের আমিন উল্ল্যাহ মেডিক্যাল সেন্টারের ল্যাব ইন চার্জ নূরের জামান (৫০) কে তার সনদ দেখাতে বললে তিনি স্টেট মেডিক্যাল ফ্যাকাল্টির সনদ দেখান। কিন্তু জিজ্ঞাসাবাদে নূরের জামান স্বীকার করেন এটি একটি জাল সার্টিফিকেট। তার এ ধরণের কোন সনদ নেই। আদালত নূরের জামানকে ১৫ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

অভিযান পরিচালনা করা হয় শহরের ট্রাংক রোডের আল্ট্রাপ্যাথ ডায়াগনস্টিক এ। এ সময় প্রতিষ্ঠানটির ১৮ বছরের পুরনো ল্যাব ইন চার্জ শেখ ফরিদ (৬০) স্টেট মেডিক্যাল ফ্যাকাল্টির সনদ প্রদর্শন করেন। আদালতকে তিনি চ্যালেঞ্জ করেন তার সনদ জাল নয়। তৎক্ষণাৎ নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সনদটি স্টেট মেডিক্যাল ফ্যাকাল্টির সচিবকে সনদটি ই-মেইল করেন।

ই-মেইলের জবাবে সচিব জানান ১৯৮২ সালের ১৩৭৪ রেজিস্ট্রেশনে পবিত্র নাথ বিশ্বাস নামে একজন আছেন। সনদের যে সিরিয়াল আছে সেই সিরিয়ালে মোঃ জহুরুল ইসলাম সরকারের নামে একজন আছেন। সনদটি জাল বলে প্রমাণিত হয়। আদালত ল্যাব ইন চার্জ শেখ ফরিদকে ১ মাসের বিনাশ্রমে কারাদণ্ডে দণ্ডিত করেন।

অভিযানে সিভিল সার্জন অফিসের ডাঃ রুবাইয়াৎ বিন করিম, জেলা স্যানিটারি ইন্সপেক্টর সুজন বড়ুয়া ও জেলা পুলিশের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে