এখনো নাদিয়ার রোগ নির্ণয় করতে পারেননি চিকিৎসকরা

0
115
https://www.noakhalitimes.com

নিজস্ব প্রতিবেদক :: কোন রকম পূর্ব লক্ষণ ছাড়াই নাক, কান, চোখ দিয়ে রক্ত পড়তে শুরু করে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জের রামপুর ইউনিয়নের বরকত উল্যাহ মাঝিবাড়ির ইমাম উদ্দিনের মেয়ে ১৬ বছর বয়সী কিশোরী নাদিয়া আক্তার নাদিয়ার।

নাদিয়া স্থানীয় বামনী আছিরিয়া ফাজিল মাদরাসায় দশম শ্রেণিতে অধ্যায়নরত। বর্তমানে সে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চক্ষু বিভাগের ৩০৬ নং ওয়ার্ডে ডা. মুক্তি রাণী মণ্ডলের অধীনে চিকিৎসাধীন। নাদিয়াকে নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর মূহূর্তেই তা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। বিরল রোগে আক্রান্ত নাদিয়ার হতদরিদ্র বাবার পক্ষে তার চিকিৎসার ব্যয়ভার বহন করা সম্ভবপর না হওয়ায় তার চিকিৎসার পূর্ণ দায়িত্ব নেয় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। নাদিয়ার মা হাসিনা আক্তার সাংবাদিকদের জানান, ‘প্রথম অবস্থায় ২০১৭ সালের নভেম্বর মাসে খাবারের পর মুখ দিয়ে রক্ত বের হত তার। এক মাস পর অর্থাৎ ডিসেম্বরের দিকে তা ক্রমশ বাড়তে থাকে। চলতি বছরের মার্চের শুরু থেকে তার চোখ, নাক ও কান দিয়ে হঠাৎ করে রক্ত বের হতে থাকে এবং এক পর্যায়ে তা বেড়ে যায়।’

ঘুমের মধ্যে নাক, কান ও মুখ দিয়ে রক্ত পড়ায় সকালে ঘুম থেকে উঠে চোখ মেলতে খুবই কষ্ট হত বলে জানায় কিশোরী নাদিয়া। ‘যখন চোখ, নাক ও কান দিয়ে রক্ত পড়ে তখন খুব জ্বালাপোড়া করে ও আমার খুব খারাপ লাগে। আমি সবার কাছে দোয়া চাই যেন আমি দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠতে পারি’ সংবাদ মাধ্যমের কাছে এমনটিই জানান নাদিয়া।

নাদিয়ার বাবা ইমাম উদ্দিন নিকচন জানান, ‘গ্রামে অনেক ডাক্তারের কাছে গিয়েছি নাদিয়াকে নিয়ে, তারা কেউ তার রোগ নির্ণয় করতে পারেনি। সবাই ঢাকায় ডাক্তার দেখানোর পরামর্শ দেয়। ঢাকায় এনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে, বক্ষব্যাধি হাসপাতালসহ অনেক জায়গায় নিয়েছি তাকে। কোন ডাক্তারই তার সমস্যা চিহ্নিত করতে পারেনি। আমাদের উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান বাদল ভাইয়ের সহযোগিতা ও পরামর্শে এখন ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাকে ভর্তি করিয়েছি। আমি চাই আমার মেয়েটা যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে উঠে’। তিনি বলেন, আমি দেশবাসীর কাছে দোয়া চাই এবং প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমার মেয়ের চিকিৎসার জন্য সহায়তা চাই।

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এ কে এম নাসির উদ্দিন জানান, নাদিয়ার এ রোগ সনাক্ত করতে নানা পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। আমরা মেডিকেল বোর্ড গঠন করেছি, খুব দ্রুত মেডিকেল বোর্ড বসে তার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে