কোম্পানীগঞ্জে বসতঘরে অগ্নিসংযোগ ঘটনায় মামলা করায় বাদীকে হত্যার হুমকি

Date:

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী)  প্রতিনিধি :: কোম্পানীগঞ্জে  জায়গা জমিনের বিরোধের জের ধরে প্রতিপক্ষের বসত ঘরে গভীর রাতে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় প্রতিপক্ষ মানিককে প্রধান আসামী করে থানায় মামলা।একজন গ্রেপ্তার হলেও প্রধান আসামীসহ অন্যরা এখনো ধরা ছোঁয়ার বাহিরে।

অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে ২০ সেপ্টেম্বর  অনুমান ৩ ঘটিকায় উপজেলার চরফকিরা ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের কৃষক আবদুল হালীমের বাড়ীতে। আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে আগুন নেভানোর চেষ্টা করে। কিন্তু দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ায় নিয়ন্ত্রণের বাহিরে চলে যায়।

এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় বড় ধরনের বিপদ থেকে পরিবারের  সদস্যরা  বেঁচে গেলেও   ঘরের সূতা পরিমাণ প্রয়োজনীয় জিনিস পত্র  রক্ষা করা সম্ভব হয়নি। আগুনে পুড়ে  অঙ্কুর হয়ে যায় পুরো বসত ঘর।

এলাকাবাসীরা  আরো জানান, বর্তমানে কৃষক আব্দুল হালীমকে বাড়ী থেকে উচ্ছেদ করার জন্য তার প্রতিপক্ষরা  এমন কাণ্ড ঘটিয়েছেন। কৃষক আব্দুল হালীম এর ৪ মেয়ে  ১ছেলে। মেয়েরা বড় হলেও ছেলেটি রয়েছে সবার ছোট।তার কোন জনবল না থাকায়  প্রায় সময় হামলা, মামলা,ভয়ভীতি, জোর করে ভূমি দখল করে করে আসছে। তারা এমনকি পাশের একটি জমিন আদালতের নিষেধাজ্ঞা থাকা সত্বেও বল প্রয়োগ করে জমিনে হাল চাষ দিয়ে ধান রোপণ করে দখল করে রেখেছে  প্রতিবেশি প্রতিপক্ষ মানিক।

ভুক্তভোগীর  স্বজনরা  অভিযোগ করে বলেন,  জায়গা জমিন নিয়ে আবদুল হালীমের  সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছে মানিকের । বিভিন্ন সময় মানিক  ও তার পরিবারের লোকজনকে হুমকি দিতো।  হুমকির বাস্তবায়ন করতে  ২০ সেপ্টেম্বর রাত প্রায় ৩ টার সময়ে  বসত ঘরে আগুন ধরিয়ে দেয় মানিক ও তার লোকজন। আগুন লাগিয়ে পালিয়ে  যাওযার সময় অনেকের নজরে আসে তারা। 

এলাকায় মানিকদের আত্মীয় স্বজনের বলয় থাকায় ভয়ে কেউ মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছেনা।  তার নেতৃত্বে এঘটনা সংঘটিত হওয়ায়  বলে  মানিক কে প্রধান আসামী করে জনের বিরুদ্ধে  থানায় একটি  মামলা দায়ের করেন কৃষক আব্দুল হালীম। মামলা করায়  আসামীরা জেলে যাওয়ার আগে তাকে জবাই করে হত্যার হুমকি দিচ্ছে মামলা প্রধান আসমী মানিক।  আসামীরা হলো, আবু ছায়েদ মানিক (৪০)   আবু নাছের (৪৫),সৈয়দ আহম্মদ (৫০) মোঃ ডালিম (৩০)আনোয়ার হোসেন (৪৪)আব্দুল হাই( ৫৫)। মামলার আসামী আনোয়ার হোসেন গ্রেপ্তার  হলেও অন্যান্য আসমীরা এখনো গ্রেপ্তার না হওয়ায় কৃষক  আব্দুল হালীমের ছেলে মেয়েদের মধ্যে প্রতিনিয়ত আতঙ্ক কাজ করছে। 

উপজেলা নির্বাহী অফিসার  মোঃ মেজবা উল আলম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে নগদ অর্থ প্রদান করেন। এলাকাবাসী এ ন্যাক্কারজনক  ঘটনায় দোষীদের বিচারের আওতায় এনে শাস্তির দাবী জানান।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Share post:

Subscribe

Popular

More like this
Related

মায়ের সাথে অভিমান করে কলেজ ছাত্রীর আত্মহত্যা

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:নোয়াখালী চাটখিলে মায়ের সাথে...

নোয়াখালীতে ২৩ সালে প্রথম দেখাদেয় ভয়ংকর বিষধর সাপ রাসেল ভাইপার

বিশেষ প্রতিবেদক :নোয়াখালীতে ২০২৩ সালের ১২ ডিসেম্বর প্রথম বারের...

চাটখিল ফোরাম সাধারণ সম্পাদকে’র বাবা-মায়ের কবর জিয়ারত

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :চাটখিল সাংবাদিক ফোরামের...

ভেরিফিকেশনে জানা গেল ভূমিহীন, পুলিশে চাকুরী হচ্ছেনা কোম্পানীগঞ্জের সানজিদার

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :: নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার মুছাপুর ইউনিয়নের...