দুবাইয়ে ১০০ কোটি টাকা জয়ী রাইফুলের নোয়াখালীর হাতিয়াতে নিজের বাড়িও নেই!

Date:

হাতিয়া (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: দুবাইয়ে নতুন বছরের প্রথম ‘বিগ টিকিট র‌্যাফেল ড্রতে’ প্রায় ১০০ কোটি টাকা বিজয়ী প্রবাসী মো. রাইফুল ইসলামের (৩৬) গ্রামের বাড়ি নোয়াখালী জেলায়। নিজ বাড়িতে বসতভিটা না থাকায় থাকেন শ্বশুর বাড়িতে।

মো. রাইফুল ইসলাম নোয়াখালীর দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার চরকিং ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ চরঈশ্বর রায় গ্রামের হাজী আসলাম মিয়ার বাড়ির মৃত খুরশেদ আলমের ছেলে।

জীবিকার তাগিদে ২০১১ সালে দুবাই পাড়ি দেন মো. রাইফুল ইসলাম। ৪ ভাইয়ের মধ্যে রাইফুল ৩য়। মা-বাবা হারানো রাইফুলের নিজ বাড়িতে নেই বসতভিটা। থাকেন একই গ্রামের শ্বশুর বাড়িতে। তার একটি কন্যা সন্তান রয়েছে। 

মো. রাইফুলের বড় ভাই মো. বাবুল উদ্দীন স্থানীয় খাবার হোটেলের ম্যানেজারের দায়িত্ব পালন করেন। মেঝো ভাই মো. সাইফুল ইসলাম স্থানীয় একটি মসজিদে মোয়াজ্জেমের দায়িত্ব পালন করেন। একবারে ছোট ভাই মো. রুবেল উদ্দীন দুবাই থাকেন।

রাইফুলের লটারি জয়ের খবরে এলাকায় বইছে খুশির হাওয়া। স্ত্রী ইসরাত জাহান রিসা সাংবাদিকদের বলেন, আমার স্বামীর ভাগ্য পরিবর্তন হইসে। আল্লাহ আমাদের দিকে তাকাইসেন। আমরা সবাই অনেক খুশি। আর আমার স্বামীকে প্রবাস করতে হবে না।

ইসরাত জাহান রিসা আরও বলেন, ১০ জানুয়ারি আমার স্বামীর বাংলাদেশে আসার কথা ছিল। টিকেট কেটে রাখসেন। এখন আসতে দেরি হবে। আল্লাহ যেন আমার স্বামীকে প্রবাস থেকে সহি সালামতে আনেন আমাদের জন্য সেই দোয়া করবেন। 

রাইফুলের বড় ভাই মো. বাবুল উদ্দীন বলেন, আমার ভাই ১২ বছর ধরে বিদেশ করে। এখনও বাড়িতে ঘর তুলতে পারে নাই। এবার দেশে আসলে ঘর নির্মাণের কথা ছিল। ভাগ্য সহায় হইসে আমার ভাইয়ের। আমরা সবাই অনেক খুশি। আল্লাহ আমার ভাইয়ের ভালো করুক।

রাইফুল ইসলামের শ্যালক মেহেদী হাসান হৃদয় বলেন, আমার একমাত্র বোনের জামাই হলেন রাইফুল ইসলাম। দুই বছর আগে আমার বোনের সঙ্গে উনার বিয়ে হয়েছে। তিনি খুব সাধারণ মানুষ। লটারি জয়ী হওয়ার পর আমার বোনের সঙ্গে কথা হয়েছে। তিনি খুব খুশি হয়েছেন লটারি পেয়ে। বাড়ির সবাই খুব খুশি।

হাতিয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুব মোর্শেদ লিটন বলেন, হাতিয়ার অনেকেই বিভিন্ন দেশে রয়েছেন। যারা ভাগ্য পরিবর্তনের জন্য বিদেশ গমন করেছেন। তবে রাইফুলের মতো ভাগ্য কারও হয়নি। আমরা অনেক খুশি হয়েছি। রাইফুলের পরিবারসহ সবার সুন্দর দিন কামনা করছি।

প্রসঙ্গত, সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) রাজধানী আবুধাবিতে ২৪৭ সিরিজের সবচেয়ে বড় পুরস্কারটি জেতেন মো. রাইফুল ইসলাম। লটারিতে পাওয়া অর্থের পরিমাণ ৩৫ লাখ দিরহাম। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় প্রায় ৯৮ কোটি ১৭ লাখ ২৩ হাজার ২৯৫ টাকা। তিনি আরব অমিরাতের আল আইন শহরের বাসিন্দা এবং পেশায় একজন গাড়িচালক।

লটারি জেতার পর রাইফুল বলেন, আমি গত ১২ বছর ধরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে বসবাস করছি। আমি বিশ্বাস করতে পারছি না যে, আমি (এটা) জিতেছি। আমি খুব আনন্দিত।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Share post:

Subscribe

Popular

More like this
Related

চাটখিলে পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় পানিতে...

খাদ্য ও চিকিৎসার অভাবে চাটখিলের জোড়া লাগা যমজ শিশু

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:নোয়াখালীর চাটখিলে আফরোজা-শাহীনুর দম্পতির...

ক্যান্সার আক্রান্ত রিজভীর চিকিৎসায় এগিয়ে আসুন

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:নোয়াখালীর চাটখিলে মরণব্যাধি ক্যান্সারে...

মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে- সাংবাদিক ও সম্পাদক আলাউদ্দিন

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :নোয়াখালী চাটখিলের কৃতি...