বসুরহাট ব্যবসায়ী সমবায় সমিতির নির্বাচন যতই ঘনিয়ে আসছে ভোটারদের দ্বারে দ্বারে প্রার্থীরা

Date:

এএইচএম মান্নান মুন্না:

দিন যতই ঘনিয়ে আসছে কোম্পানীগঞ্জের বাণিজ্যিক প্রাণ কেন্দ্র বসুরহাট ব্যবসায় সমবায় সমিতি লিঃ এর নির্বাচন পরিচালনা পর্ষদের প্রার্থীদের ভোট চাওয়ার তাৎপরতা দেখা যাচ্ছে চোখে  পড়ার মত। আগামী ২৯নভেম্বর সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত এ ভোট অনুষ্ঠিত হবে। সমিতির আওতায় বসুরহাটকে ৯টি ওয়ার্ডে ভাগ করা হয়েছে। প্রত্যেক ওয়ার্ড ১জন করে পরিচালক নির্বাচন করা হবে। বাকী পদগুলোতে রয়েছে সভাপতি, সহ-সভাপতি (১জন), সেক্রেটারী, এদের মধ্যে ৩জন পরিচালক ও সহ-সভাপতি বিনা প্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। বাকী ৭টি ওয়ার্ডে ১৪জন পরিচালক ও সভাপতি পদে ২জন, সেক্রেটারি পদে ২জন প্রতিদ্বন্ধিতা করছেন। এবার ভোটে সভাপতি-সেক্রেটারী প্রার্থী নির্বাচনে ভোটারদের গভীরভাবে চিন্তা করে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবে। যদিও এটি ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন তবে, এই সমিতিতে কোম্পানীগঞ্জের সকল দলের রাজনৈতিক নীতিনির্ধারকরা সদস্য কিংবা ভোটার রয়েছেন। জাতীয় নেতা ওবায়দুল কাদের, আবু নাছের মোহাম্মদ আবদুর জাহের, হাসনা জসিম উদ্দিন মওদুদ ছাড়া সকল রাজনৈতিক দলের লিডিং পার্সন সদস্য রয়েছেন। এ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ ও বিএনপি সরাসরি প্রভাব থাকে। ভোটার, সাধারণ ভোটারদের সদস্যদের চেয়ে রাজনৈতিক দলের সদস্যদের প্রভাব থাকে সবচেয়ে বেশি। এমনকি প্রশাসনও এ সমিতির প্রতি সুদৃষ্টি গোচর রাখে। 

সাধারণ সদস্যদের তেমন একটা প্রভাব চোখের পড়ার মত নয়। এবার নির্বাচনে আওয়ামীলীগ থেকে সভাপতি পদে কোন প্রার্থী না দিতে পারলেও সহ-সভাপতি পদে প্রভাব খাটিয়ে সহ সভাপতি পদ বিনা প্রতিদ্ধন্ধিতায় নির্বাচিত হয়েছে। সভাপতি পদে দুইজন প্রার্থী প্রতিদ্ধন্ধিতা করছেন। একজন বসুরহাটের বিশিষ্ট ব্যবসায়ী আজমিরী গ্রæপের মালিক জসিম উদ্দিন। যদিও তাকে বসুরহাট পৌরসভার মেয়র আবদুল কাদের মির্জা আশির্বাদ দিয়েছেন। জসিম বসুরহাটে প্রতিষ্ঠিত একজন স্বনামধন্য ব্যবসায়ী। তার রয়েছে ব্যবসায়ীদের মাঝে গ্রহণযোগ্যতা। তার প্রতিদ্ধন্ধি প্রার্থী হলো বসুরহাট পৌরসভা বিএনপির সভাপতি আবদুল মতিন লিটন। তিনি দুই বার এই সমিতি সেক্রেটারীর দায়িত্ব পালন করেন। দায়িত্বকালে সমিতিকে সুচারুভাবে পরিচালনার সুনাম রয়েছে। তার জন্য বিএনপি ও তাদের অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ কাজ করে যাচ্ছেন। সেক্রেটারী পদে নাজিম উদ্দিন নিজাম চরপার্বতী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ একটি অংশের সাধারণ সম্পাদক। তার জন্য আওয়ামীলীগ নেতারাও নির্বাচনে মাঠে কাজ করে যাচ্ছেন। এমনকি তাকে জেতানোর জন্য নির্বাচনী মাঠে কোমার বেঁধে নেমেছেন নেতাকর্মীরা। সে বর্তমান সেক্রেটারী থাকাবস্থায় সমিতির কোন অনিয়ম-দূর্নীতিতে জড়িত থাকার মুখরোচক আলোচনায় আসেনি। অপরদিকে তার প্রতিদ্বন্ধি প্রার্থী উপজেলা যুবদলের সদস্য সচিব জাহেদুর রহমান রাজনের পক্ষেও মাঠ চষে বেড়াচ্ছেন নেতাকর্মীরা। রাজন সমিতি এবার নতুন প্রার্থী হলেও বাজারে তার অবস্থানের গ্রহণযোগ্যতার কমতি নেই। সবকিছু মিলে এবার নির্বাচনে সভাপতি-সেক্রেটারী পদে প্রার্থীদের রাজনৈতিক একটি প্রভাব রয়েছে। যে দলের প্যানেল নির্বাচিত হবে বসুরহাট শহরে সে দলের প্রভাব বেশি থাকবে। তবে নির্বাচনে প্রার্থীরা সাধারণ ভোটারদের দ্বারে দ্বারে গেলেও কেউ মুখ খুলছেন না। ভোটাররা সকল প্রার্থীকে হাসি মুখে বিদায় দিচ্ছেন। সমিতিতে ১০৪৪  ভোটার রয়েছে। তার মধ্যে ৯শ ভোট কাস্টিং হবে বলে সাধারণ ভোটাররা মনে করছেন। দল বিবেচনায় জামাত-বিএনপির ভোট বেশি রয়েছে বলে অনেকের ধারণা। তবে হিন্দু সম্প্রদায়ের ভোট রয়েছে প্রায় ২৫০জন। তারা যে দিকে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন ওই প্রার্থীর ভোটের পাল্লা ভারী থাকবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Share post:

Subscribe

Popular

More like this
Related

সামাজিক ও রাজনৈতিক ক্ষেত্রে নারীদের স্বাবলম্বী করার জন্য আমাকে ভোট দিন -পারভীন মুরাদ

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি :নোয়াখালী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে উপজেলা মহিলা...

অবশেষে উচ্চ আদালতের আদেশে প্রতীক পেলেন মন্ত্রীর ছোট ভাই শাহাদাত

কোম্পানীগঞ্জ প্রতিনিধি:উচ্চ আদালতের আদেশে নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে...

দীর্ঘ ২মাস পর বাবা-মায়ের বুকে ফিরলেন কোম্পানীগঞ্জের নাবিক রাজু

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :: দীর্ঘ ২ মাস অপেক্ষার পর...

হাইকোর্টে আপিল করে প্রার্থীতা ফিরে পেলেন ওবায়দুল কাদেরের ছোটভাই শাহাদাত হোসেন

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :: হাইকোর্টে আপিল করে প্রার্থীতা ফিরে...