যানজটের কারণে কেন্দ্রে পৌঁছাতে দেরি, পরীক্ষা দিতে পারলনা এসএসসি পরীক্ষার্থী

Date:

বেগমগঞ্জ (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: পরীক্ষার কেন্দ্রে পৌঁছাতে দেরি করায় নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে সামিয়া সুলতানা শান্তা নামে এক এসএসসি পরীক্ষার্থীকে পরীক্ষায় অংশ নিতে দেননি কেন্দ্রসচিব। মঙ্গলবার (১৬ নভেম্বর) রসায়ন পরীক্ষার দিনে বেগমগঞ্জ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী শিক্ষার্থীর মা এবং তার বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের দাবি- রাস্তায় যানজটের কারণে কেন্দ্রে পৌঁছাতে ১৫ মিনিট দেরি হয়েছে। কেন্দ্রসচিবকে বিষয়টি জানিয়ে অনুরোধ করা হলেও সামিয়াকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়নি।

তবে কেন্দ্রসচিব বলেছেন, সামিয়া প্রায় ৪০ মিনিট পর কেন্দ্রে পৌঁছায়। ফলে তাকে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া হয়নি। বিষয়টি তিনি শিক্ষা বোর্ড কর্তৃপক্ষকে অবগত করেছেন।

জানা যায়, গনিপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের বিজ্ঞান বিভাগ থেকে এবার এসএসসি পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছে সামিয়া সুলতানা শান্তা। মঙ্গলবার তার রসায়ন পরীক্ষা ছিল। বাসা থেকে বেরিয়ে কেন্দ্রে পৌঁছাতে কিছুটা দেরি হওয়ায় কেন্দ্রসচিব ও বেগমগঞ্জ সরকারি পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আবদুল মান্না তাকে পরীক্ষায় অংশ নিতে দেননি।

সামিয়ার মা রাবেয়া সুলতানা বলেন, ‘আমার মেয়েটা কয়েকদিন ধরে অসুস্থ। অসুস্থ শরীর নিয়ে মঙ্গলবার তাকে পরীক্ষা কেন্দ্রে নেওয়ার জন্য বাসা থেকে বের হই। চৌমুহনীতে দীর্ঘ যানজটের কারণে কেন্দ্রে পৌঁছাতে প্রায় ১৫ মিনিট দেরি হয়। সেখানে যাওয়ার পর কেন্দ্রসচিব আবদুল মান্নান তাকে পরীক্ষা দিতে দেবেন না বলে জানান।’

তিনি বলেন, ‘পরে গনিপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে প্রধান শিক্ষক নিজাম উদ্দিন ও ওই বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি গোলাম ফারুক ভূঁইয়া কেন্দ্রসচিবকে পরীক্ষার অনুমতি দিতে অনুরোধ করেন। তবে তিনি কারও কথা রাখেননি।’

গনিপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি গোলাম ফারুক ভূঁইয়া বলেন, ‘যানজটের কারণে ওই শিক্ষার্থীর কেন্দ্রে পৌঁছাতে ১৫-২০ মিনিট দেরি হয়েছে। তবে তার তো পরীক্ষা দেওয়ার অধিকার আছে। প্রধান শিক্ষককে আমরা সবাই অনুরোধ করেছি। তিনি কারও কথা রাখেননি।’ তিনি বলেন, ‘আমরা এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও ওই শিক্ষার্থীকে বিশেষ ব্যবস্থায় পরীক্ষা নেওয়ার জন্য কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও নোয়াখালী জেলা প্রশাসকের কাছে দাবি জানাই।’

জানতে চাইলে কেন্দ্রসচিব আবদুল মান্নান বলেন, ‘ওই পরীক্ষার্থী ৪০ মিনিট পর কেন্দ্রে প্রবেশ করেছে। তাই তাকে পরীক্ষা দিতে দেওয়া হয়নি।’

নোয়াখালী জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ খোরশেদ আলম খান বলেন, ‘বেগমগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার বিষয়টি টেলিফোনে আমাকে জানিয়েছেন। ওই শিক্ষার্থী নির্ধারিত সময়ের অনেক পরে কেন্দ্রে প্রবেশ করেছে। তাই তাকে পরীক্ষায় অংশ নিতে দেওয়া হয়নি।’

কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান মো. আব্দুস সালাম জাগো সাংবাদিকদের বলেন, ‘পরীক্ষা শুরুর ৩০ মিনিট আগে শিক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে যাওয়ার নিয়ম। তবে কেউ দেরি করে আসলে তার নাম, রোল নম্বর, প্রবেশের সময় ও দেরির কারণ কেন্দ্রসচিবকে জানাতে হবে।’  ‘কেন্দ্রসচিব দেরিতে আসা পরীক্ষার্থীদের তালিকা প্রতিদিন বোর্ডকে জানাবে। তবে দেরি করে এলে যে পরীক্ষায় বসতে দেওয়া যাবে না, এটা ঠিক নয়।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Share post:

Subscribe

Popular

More like this
Related

সুদে নোবেল পেয়েছেন ড. ইউনুস- কাদের মির্জা

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :: গ্রামীণ ব্যাংকের প্রতিষ্ঠাতা এবং নোবেল...

‘আমেরিকার ভিসা নীতির কারণে আ.লীগের কিছু নেতার কাপড় নষ্ট হয়ে গেছে’- কাদের মির্জা

কোম্পানীগঞ্জ (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :: আমেরিকার ভিসা নীতির কারণে আওয়ামী...

সেনবাগে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে দুই নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু

নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলায় বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মো. রিপন (৩৬) ও...

ফেনী জেলা পরিষদের নতুন নির্বাহী কর্মকর্তা আজগর আলী’র যোগদান

নিজস্ব প্রতিবেদক : ফেনী জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা...