সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে সুবর্ণচরে স্কুলছাত্রদের মধ্যে সংঘর্ষ, আহত ১০

Date:

সুবর্ণচর (নোয়াখালী) সংবাদদাতা :: নোয়াখালীর সুবর্ণচরে সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে এসএসসি পরীক্ষার্থী ও দশম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষ হয়েছে। বুধবার (৩ নভেম্বর) দুপুর আড়াইটার দিকে উপজেলার শহীদ জয়নাল আবেদীন সরকারি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ফটকে এ ঘটনা ঘটে।

সংঘর্ষে আহত হয়েছে অন্তত ১০ জন। আহতরা হচ্ছে- দশম শ্রেণির (২০২২ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থী) বাদশা, দিদার, রায়হান, ইমন, নয়ন, আরাফাত, রাজু, সবুজ ও জামালসহ আরও একজন।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কাজী নজরুল ইসলাম জানান, তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উদ্ভূত পরিস্থিতি তৈরি হয়। চরজব্বার থানা পুলিশ ও বিদ্যালয়ের শিক্ষকসহ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় যারাই জড়িত তদন্ত সাপেক্ষে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

প্রত্যক্ষদর্শী মাসুদ মাহমুদ বলেন, সকালে দশম শ্রেণির ক্লাস চলাকালীন বিরতির সময় ছাত্রদের মধ্যে সিগারেট খাওয়াকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি হয়। পরবর্তীতে বিষয়টি মীমাংসা করতে তারা সহপাঠীসহ উপজেলা ছাত্রলীগের কয়েকজন শিক্ষার্থী ও স্কুলের শিক্ষক আসেন। কিন্তু দ্বিতীয় শিফটে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ছুটির সময় দশম শ্রেণির ছাত্ররা তাদের ওপর লাঠি, রামদা ও রড নিয়ে আক্রমণ করে।

এসময় বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা করে ব্যর্থ হন। সংঘর্ষে এসএসসি পরীক্ষার্থীসহ ১০ জন আহত হয়। আহত শিক্ষার্থীদের মধ্যে দুজনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

এ বিষয়ে পরীক্ষার্থী ইলিয়াস বাদশা বলে, সিনিয়রদের সামনে জুনিয়র এক ছাত্র সিগারেট খাচ্ছিল। এসময় তাকে নিষেধ করলে সে সিনিয়র এক ছাত্রকে থাপ্পড় মারে। বিষয়টি উপজেলা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক জাবেদকে অবহিত করলে তিনি বিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক রাকিবকে পাঠিয়ে শিক্ষকদের সঙ্গে বসে মীমাংসা করে দেন। পরে স্কুল ছুটির সময় জুনিয়র ছাত্ররা এসএসসি পরীক্ষার্থীদের ওপর লাঠি, রামদা ও লোহার রড নিয়ে হামলা করে।

বিদ্যালয়ের শিক্ষক বেলাল হোসেন বলেন, দশম শ্রেণির ছাত্র রিফাত, সিপাতসহ আরও অনেক ছাত্র লাঠি নিয়ে ছুটে আসে। হামলাকারীদের বাধা দেওয়ার পরও তারা আমার উপস্থিতিতে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরে সংঘর্ষ বড় হতে থাকলে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের (ইউএনও) সহযোগিতায় পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

সুবর্ণচর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ মিজানুর রহমান বলেন, হাসপাতালের জরুরি বিভাগে পাঁচ শিক্ষার্থীকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। বর্তমানে দুই শিক্ষার্থী হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।

চরজব্বার থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) উৎপল দেওয়ান বলেন, ছাত্রদের দুই গ্রুপের মধ্যে মারামারির ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

চরজব্বর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. জিয়াউল হক তরিক খন্দকার রাতে সাংবাদিকদের জানান, এ বিষয়ে এখনো কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Share post:

Subscribe

Popular

More like this
Related

চাটখিলে পানিতে ডুবে ২ শিশুর মৃত্যু

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:নোয়াখালীর চাটখিল উপজেলায় পানিতে...

খাদ্য ও চিকিৎসার অভাবে চাটখিলের জোড়া লাগা যমজ শিশু

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:নোয়াখালীর চাটখিলে আফরোজা-শাহীনুর দম্পতির...

ক্যান্সার আক্রান্ত রিজভীর চিকিৎসায় এগিয়ে আসুন

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি:নোয়াখালীর চাটখিলে মরণব্যাধি ক্যান্সারে...

মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছে- সাংবাদিক ও সম্পাদক আলাউদ্দিন

মোহাম্মদ আমান উল্যা, চাটখিল (নোয়াখালী) প্রতিনিধি :নোয়াখালী চাটখিলের কৃতি...